ব্রাজিলে নার্সারি স্কুলে ছোরা হামলায় শিশুসহ নিহত ৫


নিহতদের মধ্যে স্কুলটির এক শিক্ষক ও এক কর্মীর পাশাপাশি দুই বছরের কম বয়সী তিনটি শিশুও আছে।

হামলাকারী পরে ধারাল অস্ত্রটি দিয়ে নিজেকেও আঘাত করেন, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকলেও তার অবস্থা গুরুতর বলে পুলিশের এক বিবৃতির বরাত দিয়ে জানিয়েছে বিবিসি। 

সান্তা কাতারিনা রাজ্যের ছোট শহর সুয়াদাদেস শহরের নার্সারি স্কুলে মঙ্গলবারের এ হামলার পেছনের কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

ঘটনার সময় কয়েক ডজন শিশু ওই স্কুলভবনটিতে ছিল, কর্মীরা তাদেরকে লুকিয়ে রাখার চেষ্টা করেন বলে জানান কর্মকর্তারা।

হামলায় নিহতদের পাশাপাশি এক শিশু সামান্য আহতও হয়েছে।

মিলিটারি পুলিশ জানিয়েছে, তারা সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটের দিকে স্কুলটি যে এলাকায় অবস্থিত সেখানকার বাসিন্দাদের কাছ থেকে একাধিক ফোনে এক ব্যক্তি ছোরা নিয়ে নার্সারি স্কুলটিতে ঢুকে কর্মী ও শিশুদের ওপর হামলা করেছে বলে খবর পান।

হামলাকারীর নাম পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। তিনি প্রথম স্কুলটির প্রবেশপথে থাকা এক শিক্ষকের ওপর হামলা চালান, এরপর ওই নারী শিক্ষকের পিছু পিছু একটি কক্ষে ঢুকে সেখানে থাকা শিশুদের ওপরও হামলে পড়েন।

প্রায় ৯ হাজার বাসিন্দার শহর সুয়াদাদেসের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত ওই নার্সারিতে ৩ বছরের নিচের বাচ্চাদের পড়ানো হয় বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম গ্লোবো। 

মঙ্গলবার পরের দিকে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশের এক কর্মকর্তা হামলাকারীর ব্যবহৃত অস্ত্রটিকে ‘সামুরাই ধরনের’ অস্ত্র হিসেবে বর্ণনা করেছেন এবং সাংবাদিকদের সেটি দেখিয়েছেন।

৩ শিশুসহ ৫জন নিহতের ঘটনায় সান্তা কাতারিনা রাজ্যে তিনদিনের শোক ঘোষণা করা হয়েছে। 





Reference: Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *