জাবিতে হল-ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে মশাল মিছিল


বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের পাদদেশ থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুন্নী সরণীতে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে শেষ হয়।

সমাবেশে শিক্ষার্থীরা আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে হল-ক্যাম্পাস খুলে দেওয়ার দাবি জানান।

সমাবেশে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক শোভন রহমান বলেন, “আমাদের দাবি অত্যন্ত স্পষ্ট। ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে হল খুলে দিতে হবে। এর পরে আর একদিনও বিশ্ববিদ্যালয়ের হলের বাইরে থাকতে চাই না।”

ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল রনি বলেন, “উপাচার্য গণমাধ্যমে বলেছেন ১৫ অক্টোবরের পর হল খুলে দেওয়া হবে, আবার কোথাও শিক্ষার্থীদেরকে ১৫ দিন ধৈর্য্য ধরতে বলেছেন। অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো যখন খুলে দিচ্ছে সেখানে ধৈর্য্য ধরতে বলা আমরা মেনে নিতে পারি না।”

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, “হল না খোলা হলে ১ অক্টোবরে তালা ভেঙে হলে হলে ওঠা হবে। এর জন্য কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে তার দায় কর্তৃপক্ষকে নিতে হবে।”

ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সাংস্কৃতিক সম্পাদক ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষার্থী ঋদ্ধ অনিন্দ্যের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন দর্শন বিভাগের শিক্ষার্থী রিয়াজুল ইসলাম রিহান ও ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী নুরুজ্জামান শুভ।

এ সময় দাবি মানা না হলে পরবর্তীতে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন তারা।

এদিকে, বৃহস্পতিবার সকালে একই দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক শেখ মনজুরুল হকের সঙ্গে দেখা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। পরে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম তাদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যুক্ত হন।

আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য একাডেমিক কাউন্সিলের মিটিংয়ে দ্রুত হল খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আশ্বাস দেন ফারজানা ইসলাম।

তবে আগামী ১৫ অক্টোবরের পর যেকোনো দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের হল খুলে দেওয়া হবে বলে সাংবাদিকদের জানান উপাচার্য ফারজানা ইসলাম।





Reference: Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *