কোচবিহারে গ্রেটারের অনন্ত মহারাজের সঙ্গে তৃণমূল বিধায়কের কথা, জল্পনা তুঙ্গে


গ্রেটারের শীর্ষ নেতা অনন্ত মহারাজের সঙ্গে করলেন সিতাইয়ের তৃণমূল বিধায়ক জগদীশ চন্দ্র বসুনিয়া। এই ঘটনাকে ঘিরে ব্যাপক শোরগোল পড়েছে রাজনৈতিক মহলে। সোমবার গোসানিমারির কামতেশ্বরী মন্দিরে এসেছিলেন অনন্ত মহারাজ। সেখানেই সিতাইয়ের বিধায়কের সঙ্গে তাঁর দেখা হয়। কিছুক্ষণ তাঁদের মধ্যে কথাবার্তাও হয়েছে। সূত্রে খবর গোসানিমারি মন্দির সংলগ্ন এলাকায় ভক্তদের জন্য বিশ্রামাগার ও ছাউনি তৈরির অনুরোধ তিনি জানিয়েছেন তৃণমূল বিধায়কের কাছে। তৃণমূল বিধায়কও বিষয়টি গুরুত্ব দিয়েছেন। এর সঙ্গেই রাজনৈতিক মহলের প্রশ্ন, তবে কি বাংলায় পাকাপাকিভাবে ফিরতে এবার তৃণমূলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়াচ্ছেন অনন্ত মহারাজ? নানা প্রশ্ন ঘুরছে রাজনীতির আঙিনায়। বিজেপি সাংসদ জন বারলা যখন পৃথক রাজ্যভাগের দাবিতে সরব তখন মহারাজের সঙ্গে তৃণমূল বিধায়কের সাক্ষাৎকার যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। 

প্রসঙ্গত এবারের বিধানসভা নির্বাচনের আগে খোদ অমিত শাহ অসমে গিয়ে অনন্ত মহারাজের সঙ্গে দেখা করে এসেছিলেন। বিজেপির একাধিক নির্বাচনী সভায় দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের পাশে অনন্ত মহারাজকে দেখা গিয়েছিল। এমনকী গ্রেটার কোচবিহার পিপলস অ্য়াসোসিয়েশনের একটা বড় অংশ এবারের নির্বাচনে বিজেপির পাশে দাঁড়িয়েছেন।এমনটাও মনে করা হচ্ছে। সেই গ্রেটার শীর্ষ নেতার সঙ্গেই এদিন দেখা করলেন সিতাইয়ের তৃণমূল বিধায়ক। প্রসঙ্গত বিগতদিনে রাজ্য সরকার অনন্ত মহারাজের বিরুদ্ধে জমি বেদখল সহ নানা অভিযোগ তুলেছিল। এরপরই অসমে দীর্ঘদিন অন্তরালে ছিলেন তিনি। ভোটের আগে ফের প্রকাশ্যে আসনে তিনি। তবে সিতাইয়ের তৃণমূল বিধায়ক জগদীশ বসুনিয়া বলেন, অনন্ত মহারাজ কামতেশ্বরী মন্দিরে পুজো দিতে এসেছিলেন। আমিও মন্দিরে যাই। দুজনের মধ্যে কুশল বিনিময় হয়। এটা সৌজন্য সাক্ষাৎকার। তাঁর সঙ্গে রাজনৈতিক কোনও আলোচনা আমার হয়নি।

 

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *